কানে ‘ইন্টারন্যাশনাল মডেল অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন আজিম

লন্ডন থেকে বাংলাদেশি মডেল আজিম উদ্দৌলার জন্য অন্তর্জালে ভেসে উঠল সুখবর। ৭৪তম কান চলচ্চিত্র উৎসবে যুক্তরাজ্যের ইনটিগ্রিটি ম্যাগাজিনের উদ্যোগে পেলেন ‘ইন্টারন্যাশনাল মডেল অ্যাওয়ার্ড’। যদিও সেই পুরস্কার এখনো আজিমের হাতে এসে পৌঁছায়নি। কেননা, মহামারিকালের বাস্তবতায় ৭৪তম কান চলচ্চিত্র উৎসবে অংশ নিতে পারেননি তিনি। আজিমের সঙ্গে এই পুরস্কার ভাগ করে নিয়েছেন মার্কিন মডেল জসুয়া মুন।

আজিমের কাছে অনুভূতি জানতে চাইলে সেখানে উচ্ছ্বাসের সঙ্গে উঠে এল কিছু আক্ষেপও। বললেন, ‘আমার তো এবার কান চলচ্চিত্র উৎসবের রেড কার্পেটে হাঁটার কথা ছিল। কথা ছিল, ইনটিগ্রিটি ম্যাগাজিনের ফটোশুট করব। এই আয়োজনের সঙ্গে স্পনসর হিসেবে যুক্ত হয়েছিল কোরিয়ার তিনটি কসমেটিকস ব্র্যান্ড। ওদেরও ফটোশুট করার কথা ছিল। আমাকে ওখানে যুক্তরাষ্ট্রের নামকরা ডিজাইনার গ্রেস মুন আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। কিছুই হলো না।’

এসব হতাশার সঙ্গে আজিম যোগ করলেন স্বস্তির কথাও, ‘তবে আমি ওদের রিকয়ারমেন্ট অনুসারে ছবি পাঠিয়েছি। ওরা সেই ছবি দিয়েই ওদের কাভার করেছে। সব মিলিয়ে ভালোই লাগছে। কিছু অর্জন করলে তো ভালোই লাগে। ফেসবুকে শেয়ার করলাম। সবাই অ্যাপ্রিশিয়েট করছে। আমারও ভালো লাগছে।’

সরাসরি অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে পুরস্কার হাতে নিতে না পারার দুঃখ আজিমের একার নয়। ইনটিগ্রিটি ম্যাগাজিনও তাদের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে দুঃখ প্রকাশ করে লিখেছে, ‘আজিম উদ্দৌলা ও জসুয়া মুনকে ৭৪তম কান চলচ্চিত্র উৎসবে এই জয়ের জন্য অভিনন্দন। তাঁরা ইনটিগ্রিটি ম্যাগাজিনের আয়োজনে এবারের ‘ইন্টারন্যাশনাল মডেল অ্যাওয়ার্ডের দুই বিজয়ী। দুঃখজনক ব্যাপার হলো, আজিম শারীরিকভাবে এই আয়োজনে উপস্থিত থাকতে পারেননি। আমরা তাঁর মেধা আর যোগ্যতাকে এই পুরস্কারের মাধ্যমে উদ্‌যাপন করতে পেরে আনন্দিত।’

অন্যদিকে আজিম ইনটিগ্রিটি ম্যাগাজিনের এই পোস্টটি শেয়ার করে তাঁর ফেসবুকে লিখেছেন, ‘এবার কান চলচ্চিত্র উৎসবে প্রথমবারের মতো আমাদের বাংলাদেশের ছবি রেহানা মরিয়ম নূর প্রদর্শিত হলো। আমি এ জন্য অত্যন্ত আনন্দিত। তাঁদের অভিনন্দন। করোনার কারণে কিছু বিধিনিষেধ থাকায় আমি কানে গিয়ে এই আয়োজনে অংশ নিতে পারিনি। তবু ইনটিগ্রিটি আমাকে এই পুরস্কারে ভূষিত করায় আমি সম্মানিত। আমি যদি সশরীর সেখানে গিয়ে পুরস্কার নিতে পারতাম, তাহলে সেই প্ল্যাটফর্মে বাংলাদেশের ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রির দুর্দান্ত সব সৃজনশীল মানুষ আর তাঁদের সৃষ্টির কথা বলতাম। সেগুলোই আমাকে আজকের আমি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে।’
আজিম ছাড়াও বাংলাদেশি–আইরিশ মডেল ও অভিনেত্রী মাকসুদা আক্তার প্রিয়তির হাতে উঠেছে ইনটিগ্রিটি ম্যাগাজিনের টপ মডেলের অ্যাওয়ার্ড।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *